কেন? শাকের রাজা পুঁই*


কেন: শাকের রাজা পুুঁই? তার একমাত্র কারণ হলো অন্য যে কোনো শাকসবজি হোকনা কেন পুঁই শাকের মতো এত বেশি পুষ্টিগুণ, ভিটামিন, স্বাস্থ্যগুণ, বিভিন্ন প্রকার প্রাকৃতিক খনিজ পদার্থ, পাওয়াা যায় না গবেষক, নিউট্রিশিয়ান এবং ডাক্তারেরা সব সময় পুুঁই শাক  খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন অনেক বেশি পরিমাণে পুষ্টি গুণ থাকার কারণে পুঁইশাক নিয়মিত গ্রহণ করলে বা খাদ্যয হিসেবে খেলে যে কোন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই বেড়ে যাবে এবং সহজে আমাদের শরীরে কোনো রকম রোগ জীবাণু বাসা বাঁঁধতে পারবে না এখন দেখে নেয়া যাক ওই শাকের উপকারিতা গুলো।

ভিটামিন: পুঁই শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন থাকার জন্য পুঁইশাক কে শাকের রাজা বলা হয় এবং প্রত্যেক মানুষের ভিটামিনের চাহিদা অনেক পুঁই শাক থেকে আসে পুঁইশাক কে ভিটামিনের খনিজ বলা হয় মূলত ভিটামিন পাওয়া যায় বিভিন্ন প্রকার আমিষ খাবার থেকে যে রকম মাছ মাংস দুধ ডিম প্রকৃতি এ ধরনের খাবার থেকে কিন্তু শাকসবজির ভেতরে খুব কম পাওয়া যায় কিন্তু পুঁই শাকের ভেতরে অনেক ভিটামিন পাওয়া যায় এবং আমাদের শরীরকে ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করে এবং আমাদের অনেক শক্তিশালী সৌন্দর্য দেহের গঠন হার্ট সুস্থ রাখতে সাহায্য করে এবং আমাদের শরীরে মেলানিন হরমোন বাড়িয়ে আমাদেরকে ঘুম আসতে সাহায্য করে এবং ঘুমে সহায়তা করে অনেক তাই।

বিভিন্ন প্রকার খনিজ সমৃদ্ধ: আমাদের অনেকেই খনিজ পদার্থের আমাদের শরীর অভাব দেখা দেয় আমরা জানি আমাদের শরীরে খনিজ পদার্থের অভাবে ঘটলে আমাদের শরীর হলদেটে হতে থাকে বা আমাদের শরীরটা অনেকটা হলুদ ভাব চলে আসে আমরা অনেকেই ভয় পেয়ে যাই জন্ডিস হয়েছে এবং জন্ডিসের জন্য নানারকম পরীক্ষা খরচাপাতি আমাদের হয়ে যায় কিন্তু কিছুতেই কিছু হয় না তার কারণ আমাদের শরীরে জন্ডিস হয়নি যেটা হয়েছে সেটা হলো আমাদের শরীরে বিভিন্ন প্রকার খনিজ পদার্থের অভাবে ঘটেছে জিংক আয়রন পটাশিয়াম ফসফেট প্রভৃতি খণিজ গুলো আমাদের শরীরে কোনদিনই অভাব হবে না যদি আমরা নিয়মিত পুই শাক খায় পুঁইশাকে বিভিন্ন প্রকার খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ তার নিয়মিত খেলে খনিজ পদার্থের অভাবে ঘটে না।

মাথা ঠান্ডা রাখতে: বর্তমানে অনেকেরই মাথা গরমের দোষ দেখা দিচ্ছে কারণে-অকারণে মাথা গরম হচ্ছে অনেক সমস্যার মধ্যে পড়ে যেতে হচ্ছে মাথায় ভাবতে হচ্ছে সাধারণভাবে কোনো রকম চিন্তাভাবনা করতে গেলে মাথা যন্ত্রণা করছে রাতে ঘুমানোর সময় প্রচন্ড হারে মাথা যন্ত্রণা মাথা ব্যথা মাথা ব্যথা অনেক প্রবলেমের মধ্যে আছেন এরকম লোক অনেক আছে আমাদের মাথা হাজার হাজার সুক্ষ কনা দিয়ে তৈরি এবং এবং নানারকম ব্যাঘাত ঘটার কারণে আমাদের মাথা প্রচন্ড হারে গরম হয় কিন্তু আমরা যদি নিয়মিত পুঁইশাক খাদ্য হিসেবে খায় তাহলে আমাদের মাত
 সবসময় ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে পুঁইশাকের ফাইবার গুলো আমাদের মাথা সবসময় ঠান্ডা রাখে এবং ঠাণ্ডা রাখতে সব সময় সাহায্য করে।

লিভার এর কার্যকারিতা: এখন দেখা যাচ্ছে সমগ্র বিশ্বে লিভার এর কার্যকারিতা মানুষ সন্দিহান প্রত্যেক মানুষেরই কার্যকারিতা আস্তে আস্তে কমতে থাকে আমরা প্রত্যেকেই এমন খাবারগুলো খায় যে খাবারগুলো হয়তো অনেক সুন্দর খেতে অনেক মস্তি কর সেসব খাবার গুলোর দিকে আমরা প্রত্যেকেই ঝুঁকি থাকে আরে কি ভুলটাই না আমরা করছি আট থেকে আশি প্রত্যেকেরই একটাই ইচ্ছে খাবার হতে হবে মুখরোচক খেতে ভালো হলেই হবে তার পুষ্টিগুণের কোন আমরা বিচার করি না তার কি উপকারিতা আছে আমরা একবারও বিচার করি না এখানেই আমরা প্রত্যেকেই ভুল করি এবং আমাদের ভুলের মাশুল আমাদের লিভারকে দিতে হয় আমাদের লিভার দিনের-পর-দিন কার্যকারিতা হারিয়ে ধ্বংসের মুখে চলে যাচ্ছে কিন্তু আমরা যদি নিয়মিত পুই শাক খায় তাহলে আমাদের লিভার স্বাভাবিক কাজকর্ম করবে সুন্দর এবং সতেজ থাকবে সব সময়।

রক্তের সমস্যায়: আপনি যদি আপনার রক্ত সব সময় দূষণমুক্ত করতে চান বা পরিস্রুত করতে চান তাহলে আপনাকে নিয়মিত পুই শাক খেতে হবে এবং রক্তের শক্তি বা ক্ষমতা বাড়াতে পুইশাকের জুড়ি মেলা ভার এবং নতুন রক্ত উৎপাদন বা তৈরিতে এই শাক অনেকটাই সাহায্য করে এবং আমাদের শরীরে যদি পর্যাপ্ত রক্ত না থাকে তাহলে আমাদের মাথা ঘোরা শরীর ক্লান্ত হয়ে যাওয়া কাজ না করতে হেলিয়ে যাওয়া এসব সমস্যা গুলো প্রতিনিয়ত দেখা দেবে নিয়মিত পুঁই শাক সবজি গুলো গ্রহণ করলে আমাদের মাথা ঘোরা শরীর ক্লান্ত হওয়া এইসব প্রবলেম তার দেখা দেবে না এবং আমাদের রক্তর ইমুনিটি তৈরি করে যে কোন ভাইরাসের হাত থেকে আমাদের খুব সহজে রক্ষা করে কোন ভাইরাস আমাদের সহজে অ্যাটাক করতে পারে না এবং রক্তের কার্যকারিতা অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়।








thanks.



   

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন