সেক্স চ্যাট? সাবধান না‌হলে মহাবিপদ*


আপনি- কি অনলাইনে সেক্স চ্যাট করেন। তাহলে খুব তাড়াতাড়ি সাবধান অবলম্বন করুন নাহলে মহা বিপদে পড়ে যাবেন। বর্তমানে সাধারণ মানুষ জনকে ফাঁসিয়ে তাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে টাকাপয়সা। বর্তমানে সাইবার ক্রাইম এর মাধ্যমে কিছু অসাধু লোক সাধারণ মানুষজনকে সেক্স চ্যাট এর প্রলোভন দেখিয়ে তাদের সর্বস্ব লুট করে নিচ্ছেছে তাকে নানা রকম ভাব ব্ল্যাকমেইল করছে ব্যাংকের পাস বই যাবতীয় তথ্যয এইসব হ্যাকাররা হাতিয়ে  সাধারণ মানুষ জনকে  সর্বশান্ত করছে দেখে নেওয়া যাক প্রলোভন দেখিয়ে কিভাবে আমাদের ক্ষতি করছে। আমরা কিন্তু সহজে বুঝতে পারছি না।


যৌনতার লোভ: বর্তমানে সবথেকে আকর্ষিত বস্তু হচ্ছে সুন্দর সুন্দর মেয়েরা এবং তাদের উন্মুক্ত যৌন চাহিদা আমরা সাধারন মানুষ জন খুব তাড়াতাড়ি এই ফাদে পা দিচ্ছি আমরা আগেপিছু না ভেবেই অনলাইনে সুন্দর সুন্দর মেয়েদের ছবি উন্মুক্ত ছবি সেক্সুয়াল ছবি আকর্ষিত ছবি আমাদের মনকে গলিয়ে দিচ্ছি আমরা খুব তাড়াতাড়ি গলে যাচ্ছে এবং নানা রকম ভাবে সেক্সুয়াল চ্যাত এর ফাঁদে পড়ে যাচ্ছি একদল অসাধু লোকজন নিজের স্বার্থ চরিতার্থ করতে আমাদের মত সাধারণ লোকজন কে টার্গেট করছে এবং অনলাইনে আমাদেরকে নানা খুব সুন্দর সুন্দর মেয়েদের ছবি নম্বর দিচ্ছে এই সকল মেয়েগুলো এই কাজের সাথে যুক্ত করে কাজ করা থেকে অল্প সময়ে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে সেটা কিভাবে আমাদেরকে বোকা বানিয়ে যৌনতায় আমাদেরকে ফাঁসিয়ে আমাদেরকে নানাভাবে হট ছবি পাঠিয়ে উত্তপ্ত করছে এবং ফোন নাম্বার দিয়ে নানা রকম হট চ্যাট করছে যাতে আমরা খুব তাড়াতাড়ি পাগল হয়ে যায় এবং শেষে কি করছে আমাদেরকে রূপে ফাঁসিয়ে আমাদের ব্যাংক ব্যালেন্সের যাবতীয় তথ্য নিয়ে নিচ্ছে এবং আমাদের ব্যাঙ্ক ব্যালেন্স একদম খালি করে দিচ্ছি এটাই এসকল মেয়েদের ব্যবসা বিনা পুঁজির ব্যবসা দিনে দিনে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে এভাবেই।

হাসিতে ফাঁসি: বর্তমানে বিভিন্ন অনলাইন সাইডে সুন্দর সুন্দর মেয়েরা সেক্স চ্যাটের অফার দিচ্ছে এরা মূলত বড় অবৈধ গাঙ্গের লোক ইরা অনলাইনে হাজার হাজার লোককে বোকা বানাচ্ছি ফোন নাম্বার দিয়ে মুখে মিষ্টি মিষ্টি হাসি কথা বলে আমাদেরকে ফাঁসাচ্ছে এ সকল মেয়েরা মানুষকে ঠকানো এদের পেশা এই কাজকর্ম করে খায় শুধু একজনকে না হাজার হাজার মানুষজনকে ফাঁসাচ্ছে এই সকল মেয়েরা এরা মূলত মানুষকে ঠকানো এদের কাজ বর্তমানে অনেকেই এভাবে   ফেসেছে এবং নিজের সমস্ত টাকা-পয়সা খুইয়েছে এরকম ঘটনা আমরা খুবই কমই দেখতে পাই বললে ভুল হবে বর্তমানে বড় মাথাচাড়া দিচ্ছে ঘটনা আমাদেরকে সাবধানে থাকতে হবে নইলে আমরা বিপদে পড়ে যাব।

ব্ল্যাকমেইল: বর্তমানে দেখা যাচ্ছে এই সকল মেয়েগুলো আমাদেরকে প্রথমে যৌনতার ফাঁসিয়ে নানারকম সেক্সুয়াল কথা বলে নানারকম সেক্সুয়াল ছবি পেস্ট করে এবং সেক্সুয়াল কথাবার্তা নোট করে আমাদেরকে কিন্তু পরবর্তীকালে ব্ল্যাকমেইল করে এবং অনেক টাকা-পয়সা দাবিদার করে এবং বলে আমরা তাকে বসে না দিতে পারলে আমাদের ঐসকল সেক্স চ্যাট গুলো দেখিয়ে দেবে এবং আমাদের সংসারে অশান্তি সৃষ্টি করবে তাছাড়া অনলাইনে প্রকাশ করে আমাদেরকে সর্বস্বান্ত করবে এরকম ভাবে আমাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করছে এবং আমরা বেশির ভাগই টাকা-পয়সা দিয়ে এখান থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছি কিন্তু তাদের চাহিদা শেষ হয়না সুমানে টাকা চেয়ে যায় আর না দিতে পারলে আমাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে আমাদেরকে সেক্স চ্যাট গুলো অনলাইনে পোস্ট করব এবং আমাদের সংসারে অশান্তি লাগিয়ে দেব এভাবে আমাদেরকে ব্যাকমেইল করে সর্বস্বান্ত করছে।

মূল উদ্দেশ্য: শুধু যে আমাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয়া সেটা না আরেকটা মূল উদ্দেশ্য হলো আমাদের দেশের তথ্য হাতিয়ে বিদেশে পাচার করে কোটি কোটি টাকা ইনকাম করা বর্তমানে এই সাইবার ক্রাইম অনেকেই আসক্ত হয়ে গেছে এবং বুঝতে পারছি না অনেকেই সেক্স চ্যাট করার ফলে আমাদের কত বড় ভুল করছে আমরা কত বড় ভুলের মাশুল দিতে হবে আমাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করে সর্বশান্ত করছি এবং আমাদের দেশের তথ্য আমাদের মাধ্যমে নিয়ে বিদেশে পাচার করছে এবং প্রচুর টাকা ইনকাম করছে এবং আমাদের মাধ্যমে আমাদের দেশটাকে ধ্বংস করার প্ল্যান করছে এবং আমরা খুব সহজেই ওই হ্যাকারদের প্লানে পা দিয়ে ফেলে দিচ্ছি আমরা আমাদের নিজেদের এবং দেশের বড় ক্ষতি করে ফেলছি আমার অজান্তেই আজকে থেকে সাবধান হোন এবং সুন্দর জীবন উপভোগ করুন।

সুস্থ সমাজ গঠন: সর্বদা যাচাই করুন রং নাম্বারে চ্যাট করার আগে এবং আসক্ত না হয়ে সাধারণ একটু জ্ঞান বুদ্ধি দিয়ে বিচার করুন তাহলে বুঝতে পারবেন কোনটা ভুল কোনটা ঠিক যৌনতা প্রত্যেকটি আকর্ষণ করে প্রত্যেককেই কিন্তু অনলাইন চ্যাট করার সময় সব সময় সজাগ থাকতে হবে না হলে আখেরে বড় ক্ষতির মুখে পড়তে হবে। বর্তমানে পুলিশ প্রশাসন সাধারণমানুষ জনকে বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও আমরা কেউই সতর্ক হচ্ছি না এবং আকারে আমরা আমাদের মস্ত বড় ক্ষতি করে ফেলছি এখন অনেক এধরনের কে পুলিশ স্টেশনে কিনতে দেখা যাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন এই ব্যাপারটা নিয়ে অনেক  মাথাব্যথার মধ্যে আছে তাই এই সকল প্রবলেম যদি আমরা পড়ি তাহলে পুলিশ প্রশাসনের সাহায্য নিয়ে এই প্রতারণামূলক কাজকর্মকে ধরিয়ে দিয়ে সুন্দর পৃথিবী গড়ে তুলতে চাই আমরা সবাই পুলিশ প্রশাসনকে সাহায্য করতে চাই তাহলে প্রতারকরা খুব সহজে ধরা পড়বে এবং সুস্থ সমাজ গড়ে উঠবে।





Thanks.





একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন